আপনার নূতন জীবন

যে মুহূর্তে আপনি যীশু খ্রীষ্টকে আপনার পরিত্রাণকর্তা হিসেবে গ্রহণ করেছেন, তখন থেকেই আপনার নূতন জীবন শুরু হয়েছে। তিনিই জীবনদানকারী- যে জীবন বিস্ময়কর, উন্নত, আনন্দময় এবং কোনদিন শেষ হয় না। এই কোর্সে নূতন জীবনে সম্বন্ধে ব্যাখা দেয়া হয়েছে।

এই ১ম পাঠে আপনি জানতে পারবেন, আপনার পরিবর্তন সম্পর্কে বাইবেল কি বলে। আপনি আপনার নূতন অধিকার ও কর্তব্য সম্পর্কে জানতে পারবেন। আপনি আপনার নূতন পরিবার সম্পর্কে জানতে পারবেন। এছাড়াও আপনি আপনার নূতন সম্পর্ক সম্পর্কে জানতে পারবেন, যা ঈশ্বর চান, যেন প্রভুতে আপনার অন্যান্য ভাই-বোনদের সাথে গড়ে উঠে।


আপনি কি নতুন হাটতে শিখছে, এমন কোন শিশুকে দেখেছেন? দাড়াতে পারছে না, কাপা কাপা পায়ে ছোট শিশুটি একবার দাড়ানোর চেষ্টা করছে আবার পড়ে যাচ্ছে, রুমের মধ্যে যা দেখছে তাই ধরে দাড়ানোর চেষ্টা করছে। কিন্তু কি উত্তেজনা! কি রকম তাকানো ভঙ্গি- যেন সে পৃথিবী জয় করে ফেলেছে! এভাবে কখনও নড়ছে, কখনও দাড়াচ্ছে, কখনও পড়ে যাচ্ছে- কিন্তু প্রতিবার আবার উঠছে এবং হাটার চেষ্টা করছে- নতুন শিশু প্রথম হাটতে শিখছে।
সফল হওয়ার জন্য তার ইচ্ছা খুব দৃঢ়। পিতামাতা সব সময় তার কাছাকাছি থাকছে, তাকে সাহায্য করছে এবং প্রতি পদক্ষেপে উৎসাহিত করছে।

এই পাঠে আপনি বুঝতে পারবেন কিভাবে ঈশ্বর আপনার সঙ্গে কথা বলেন। মাঝে মাঝে তিনি সরাসরি কথা বলেন, আবার মাঝে মাঝে তার বাক্য অর্থাৎ বাইবেলের মাধ্যমে কথা বলেন। আবার মাঝে মাঝে তিনি অন্য কোন খ্রীষ্টিয়ান মানুষের মাধ্যমেও কথা বলেন। এই পাঠ পড়লে আপনি বুঝতে পারবেন কিভাবে আপনার পিতার স্বর চেনা যায় এবং তিনি কোন পদ্ধতিতে আপনার সঙ্গে কথা বলছেন।

এই পাঠে আপনি বুঝতে পারবেন কিভাবে ঈশ্বর আপনার সঙ্গে কথা বলেন। মাঝে মাঝে তিনি সরাসরি কথা বলেন, আবার মাঝে মাঝে তার বাক্য অর্থাৎ বাইবেলের মাধ্যমে কথা বলেন। আবার মাঝে মাঝে তিনি অন্য কোন খ্রীষ্টিয়ান মানুষের মাধ্যমেও কথা বলেন। এই পাঠ পড়লে আপনি বুঝতে পারবেন কিভাবে আপনার পিতার স্বর চেনা যায় এবং তিনি কোন পদ্ধতিতে আপনার সঙ্গে কথা বলছেন।

এই মূহুর্ত থেকেই আপনার জীবনে একটি পরিবর্তন শুরু হয়েছে। আপনার আত্মিক জীবন উন্মোচিত হচ্ছে। খ্রীষ্টেতে “বৃদ্ধি পাওয়ার” সঙ্গে সঙ্গে, পূরাতন বিষগুলো পরিবর্তিত হয়েছে নূতন বিষয় আসছে। নূতন কর্তব্যও আছে- যা আপনাকে নূতন পুরস্কার ও পরিতুষ্টি দান করবে। এই পাঠে আমরা এই বিশেষ পরিবর্তন ও কর্মকান্ডের বিষয় জানব। আপনি বুঝতে পারবেন যে অন্য লোকেরাও আপনার নূতন বিষয়গুলো সম্পর্কে আগ্রহী।


যদি কোন ব্যক্তি কোন বিশেষ লক্ষ্যে পৌছাতে চায় তাহলে তার কিছু বৈশিষ্ট্য থাকা দরকার। যেমন, অ্যাথলেটরা তাদের কোচের নির্দেশনা অনুসরণ করে। তাদের কিছু কিছু কাজ করতে হয় আবার কিছু কিছু কাজ বাদ দিতে হয়। তাদের উদ্দেশ্য হল, শক্তি ও দক্ষতা অর্জন করা যেন জয়ী হতে পারে। এখন, যেহেতু আপনি একজন খ্রীষ্টিয়ান আপনারও নূতন এবং বিশেষ লক্ষ্য রয়েছে। এই লক্ষ্য হল ঈশ্বর আপনার প্রতি যেমন চান সেই রকম কাজ করা। আপনার নির্দিষ্ট বৈশিষ্ট্য থাকার এটি একটি অন্যতম কারণ।
আপনার স্বর্গীয় পিতা চান যেন আপনি তার পরিবারের অংশ হন এবং তিনি আপনার জীবনের জন্য যে লক্ষ্য রেখেছেন তা পূরণ করেন। ঈশ্বর আপনাকে সাহায্য করার জন্য যে নূতন বৈশিষ্ট্য দান করতে চান তা এই পাঠে বর্ণনা করা হয়েছে। এগুলো অনুসরণ করলে জীবনে অনেক উপকৃত হতে পারবেন।


যদি আপনি পবিত্র-আত্মাকে আপনার পরিচালক হিসেবে মনোনীত করেন তাহলে বুঝতে পারবেন কিভাবে ঈশ্বরের দেয়া বৈশিষ্ট্য সঠিক রাখতে হয়। পবিত্র-আত্মা আপনাকে শক্তি দেবেন যেন আপনি খারাপ পথ থেকে সঠিক পথে আসতে পারেন। দিনে দিনে আপনি স্বর্গীয় পিতার ইচ্ছামত বৃদ্ধি পেতে থাকবেন।
হ্যা, আপনার একজন চমৎকার সাহায্যকারী আছেন! এই পাঠটি আপনি বুঝতে সাহায্য করবে তিনি কে এবং কিভাবে তিনি আপনাকে সাহায্য করবেন।


অনেকেই আপনাকে লক্ষ্য করে আপনি ঈশ্বরের শক্তি সম্পর্কে সত্য বলছেন কিনা। আপনার জীবনের দ্বারা তারা বুঝবে কিভাবে সুসমাচার মানুষের জীবনে পরিবর্তন আনে। আপনি যা বলেন, তার চেয়ে যা করেন সেটি যীশুর জন্য বেশি স্বাক্ষ্য বহন করে।
এই পাঠে আমরা দেখবো, যীশু আপনার জীবনে বাস করার ফলে আপনার জীবন আলোক রশ্মিতে উজ্জ্বল হয়ে ওঠে। এইসব আলোক রশ্মির দ্বারা অন্যরা সুসমাচারের সত্যতা সম্পর্কে জানতে পারে।


একটি আদর্শ খ্রীষ্টিয় সুখী পরিবার থাকার চেয়ে বড় আর্শীবাদ এই পৃথিবীতে আর কিছুই নেই। এটি যেন পাপের ঝড় এবং চতুর্দিকের সমস্যা থেকে একটি নিরাপদ আশ্রয়।এটি এমন একটি জায়গা যেখানে শিশুরা নিরাপদ অনুভব করে এবং ভালবাসা খুজে পায়।
আপনি আপনার পরিবারকে স্বর্গের “একটি ক্ষুদ্র অংশ” তৈরি করতে পারেন, যদি আপনি ঈশ্বরের কথা অনুযায়ী কাজ করেন।


এই পাঠে ব্যাখা করা হয়েছে, ঈশ্বরের সন্তান হওয়ার পরমুহুর্ত থেকে আপনি কি ধরণের স্বাধীনতা লাভ করেছেন। এই স্বাধীনতা আপনাকে পাপের ভয়ংকর প্রভাব থেকে মুক্ত করে। এই স্বাধীনতা আপনার সমস্ত ভয় দূর করে। এটি আপনাকে আত্মিক ভুল এবং সংশয় জয় করতে সাহায্য করে। যীশু খ্রীষ্ট আপনার জন্য যা করেছেন তার জন্যই এই স্বাধীনতা আপনার। কিন্তু এগুলো মাত্র শুরু।
আপনার জীবনের নূতন স্বাধীনতা, যা ইতিমধ্যেই আপনি লাভ করেছেন, কোনদিনও শেষ হবে না!